মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সিটিজেন চার্টার

 

(১)    সংশিষ্ট এলাকার দরিদ্র জনগোষ্ঠীর সমন্বয়ে সরকারী পতিত ভূমিতে বনায়ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন।

(২)    সামাজিক বনায়নের সৃজিত বাগান হইতে বিক্রিত বনজদ্রব্যের লভ্যাংশ বিধি মোতাবেক সংশ্লিষ্টগনের মধ্যে বিতরণ ও বিক্রয়ের ব্যবস্থা গ্রহণ।

(৩)   ট্রি ফার্মিং ফান্ড দ্বারা ২য় আবর্তের বাগান সৃজন ও রক্ষনাবেক্ষনের ব্যবস্থা গ্রহণ।

(৪)    সামাজিক বনায়ন সংক্রান্ত যে কোন অভিযোগ নিষ্পত্তি করণ।

            (৫)  বিনামূল্যে সরকারী, আধাসরকারী ও স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানে বনায়ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন।

(৬)  ব্যক্তিমালিকানাধীন ভূমিতে আবেদনের প্রেক্ষিতে সামাজিক বনায়ন বিধিমালা-২০০৪ অনুযায়ী বনায়নে সহযোগিতা প্রদান।

        (৭)  বনজদ্রব্য বিক্রয় করণ।

               (৮)  বন বিভাগের নার্সারীতে বনজ, ফলদ, ঔষধি ও শোভা বর্ধনকারী গাছের চারা সরকারী মূল্যে জনগনের মধ্যে বিক্রয়।                 

   (৯)   জনগণকে বীজ সংগ্রহ, নার্সারী উত্তোলন, বাগান সৃজন, রক্ষণাবেক্ষণ এবং চারা পরিচর্যা    বিষয়ক প্রশিক্ষণ ও কারিগরি পরামর্শ প্রদান।

       (১০) বন্য প্রাণী লালন-পালনের পজেশন সার্টিফিকেট প্রদানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ।

           (১১)  অবৈধ বনজদ্রব্য এবং বন্য প্রাণী পাচার রোধে বিধি মোতাবেক কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ।

   (১২)  সরকারী, আধাসরকারী জায়গায় অধিগ্রহণ/উন্নয়নমূলক কাজের স্বার্থে গাছ পরিমাপ করত: প্রাক মূল্য নির্ধারণ।

   (১৩) বৃক্ষরোপণ ও পরিচর্যায় জনসাধারণকে উদ্বুদ্ধ করণের লক্ষ্যে উপজেলা পর্যায়ে বৃক্ষমেলার আয়োজন।

       (১৪) বৃক্ষরোপণে জনগণকে উৎসাহিত করার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় পুরস্কার প্রদানের আবেদন  সংগ্রহ ও প্রক্রিয়া করণ।

      (১৫)  সরকারী বিধি মোতাবেক করাতকলের লাইসেন্স প্রদান ও নবায়নের ব্যবস্থা গ্রহণ। বন আইন-    ১৯২৭, বন্যপ্রাণী (সংরক্ষন) (সংশোধন) আইন- ১৯৭৪, করাতকল লাইসেন্স বিধিমালা -১৯৯৮ ও ইট পোড়ানো নিয়ন্ত্রণ আইন-১৯৯১ এর বাস্তবায়নে ব্যবস্থা গ্রহণ।

 


Share with :

Facebook Twitter